Breaking News

অষ্টম শ্রেণিতে বিয়ে, দশম শ্রেণিতে এসে লা;শ!!

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া রাখি খাতুন (১৬) নামে এক গৃহবধূর র,হস্যজ,নক মৃ,ত্যু হ,য়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার পার ভাঙ্গুড়া ইউনিয়নের ভেড়ামারা গ্রামে স্বামী সুজন আলীর বাড়ি থেকে ওই গৃহবধূর ঝু,লন্ত ম,রদে,হ উ,দ্ধার করে পুলিশ। সুজন ওই গ্রামের মোকসেদ আলীর পুত্র ও সেনাসদস্য। এ ঘটনায় থানায় একটি অ,পমৃ,ত্যু মা,মলা দায়ের হয়েছে।

 

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২ বছর আগে উপজেলার ভেড়ামারা গ্রামের হারুনুর রশিদের কন্যা রাখির সাথে একই গ্রামের সুজনের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় সুজন প্রায় ১০ লাখ টাকা যৌ,তুক নেন। এর কিছুদিন পরেই সুজনের বাংলাদেশ সেনাবা,হিনীতে চাকরি হয়। চাকরী রক্ষার্থে সুজন ও রাখির পরিবার বিয়ের বিষয়টি গো,পন রেখে রাখিকে বাবার বাড়িতে রাখেন। একপর্যায়ে তিন চার মাস আগে সুজনের পরিবার রাখিকে গৃহবধূর স্বীকৃতি দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বাড়িতে নিয়ে আসেন। তবে এরই মধ্যে সুজনের সঙ্গে তার এক খালাতো বোনের প,রকী,য়া প্রে,মের স,ম্পর্ক গ,ড়ে ওঠে। এ নিয়ে সুজন ও রাখির মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে ঝা,মেলা চলছিল। কয়েকদিন আগে সুজন ছুটিতে বাড়িতে আসলে এ ঘটনায় স্ত্রীর সাথে তার বা,কবি,তণ্ডা হয়। এরপর সুজন কর্মস্থলে চলে গেলে সকালে সুজনের ঘর থেকে গ,লায় ও,ড়না প্যাঁ,চা,নো রাখির ঝু,লন্ত লা,শ দে,খতে পায় পরিবারের সদস্যরা। পরে পুলিশ গিয়ে লা,শ উ,দ্ধার করে থা,নায় নিয়ে আসে।

 

তবে রাখির পরিবারের দাবি, সুজনের পরিবারের লোকজন নি,র্যাতন করে রা,খিকে হ,ত্যা ক,রেছে। বিষয়টি ধা,মাচা,পা দিতে লা,শ ঝু,লিয়ে রা,খা হয় বলে অ,ভিযোগ করেন তারা।

 

ঝু,লন্ত গৃ,হব,ধূর লা,শ উ,দ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে ভাঙ্গুড়া থানার ডিউটি অফিসার এসআই হেমায়েত উদ্দিন বলেন, লা,শ উ,দ্ধার করে থানায় রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় বিকাল একটি অ,পমৃ,ত্যু মা,মলা দায়ের করা হয়েছে। আগামীকাল ময়নাতদন্ত শে,ষে নি,হতের ম,রদে,হ পরিবারের কাছে হ,স্তান্তর করা হবে। ময়নাতদন্তের রি,পোর্ট পেলে এ বিষয়ে প্র,কৃত মৃ,ত্যুর কা,রণ জানা যাবে।

 

 

একটিবারও কি তাদের ভবিষৎ চিন্তা করেছি? ব’র্তমান সময়ে প্রায় সব শ্রেণীর মানুষ এ ধরনের প্রে’মলী’লার আ’কর্ষণে আ’কৃষ্ট। তাই সকাল ১০টা বাজতে না বা’জতে পার্ক যেন প’রকী’য়ার লী,লায় উদ্ভাসিত হতে থাকে। শহর ছেড়ে এখন গ্রামেও এ’গুলো প্রভাব বিস্তার করছে।

 

বি’ভিন্ন পার্কে এবং রেস্টুরেন্টে গিয়ে দেখা মিলে এদের । কেউ স্কুল ফাঁ,কি দিয়ে আবার কেউ কলেজ ফাঁ’কি দিয়ে এমন প্রে,মলীলায় মে,তে আছেন। সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে চলে এই প্রে’মলি’লা। এমনই এক রো,মান্সকর প্রে’মিক জু,টির সাথে দেখা হয় বেলা সাড়ে ১১টায়। প্রে,মিক….. পেশায় একজন রিকশাচালক।

 

তার প্রে’মিকা …একজন গৃহীনি। তিনি প’রকি’য়ায় জ’ড়িয়ে গেছেন অনেক আগে। তার সাথে কথা বলে জানা গেছে যে প্রে’মিকের ঘরে একটি সুন্দর ফুটফুটে মেয়েও আছে? সবচাইতে অবাক হলাম। যে তারা দুজনই বিবাহিত। আজকের স’মাজটা কোথায়? এখানে আপনি কাকে দায়ি করবেন?

About admin

Check Also

চালক প্রাণ দিয়েও ডাকাতদের কবল থেকে রক্ষা করতে পারলেন না বাস

গাইবান্ধা জেলার সীমানা চম্পাগঞ্জ এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে হানিফ পরিবহনের একটি নৈশকোচে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। এ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.