Breaking News

এবার মাস্টারমাইন্ডের খোঁজে সালাউদ্দিন লাভলু

এবার ডিবি পুলিশ সেজে মাস্টারমাইন্ডের খোঁজ করছেন সালাউদ্দিন লাভলু। সন্দেহ প,তি,তালয়ে থাকা প্রেমিক জুটি মনোজ, অর্ষাসহ আরো কয়েকজনের ওপর। থ্রিলারধর্মী  টেলিফিল্ম ‘দ্য মাস্টারমাইন্ড–ধোঁকায়’ দেখা যাবে এ চিত্র।

 

টেলিফিল্মে প,তিতালয়ের এক মেয়ে পরী বানু খু,ন হয়। সেই সঙ্গে তার ঘরের সব জিনিস উধাও। ওই মেয়ের ওড়নার গিঁটে জুয়েলারির দোকানের দামি গয়না ও হীরার আংটির কাগজ পাওয়া যায়। তার কাছে দামি জুয়েলারি এলো কিভাবে এইটা নিয়েই স,ন্দেহ শুরু হয়। বিষয়টি স,ন্দেহজনক মনে হয় পুলিশের। প,তিতাল,য়ে থাকা এক প্রে,মিক জুটি ববি (মনোজ) ও শিউলি (অর্ষা) পুলিশকে চাপ দেয় খু,নিকে ধরতে।  আর সেই রহস্য উন্মোচন করতে মাঠ নামেন হামিদ। (সালাউদ্দিন লাভলু)।

 

এই টেলিফিল্মের পরিচালক গোলাম সোহরাব দোদুল বলেন, ‘থ্রিলারধর্মী এই টেলিফিল্মে একটা অপরাধের গল্প সামনে আসবে- একটি দামি হীরার এন্টিক আংটি ও হ,ত্যার র,হস্য তদন্ত করতে গিয়ে। সবার অভিনয় চমৎকার হয়েছে।’

 

টেলিফিল্মটি রচনা করেছেন গুলশান হাবিব রাজীব ও পরিচালনা করেছেন গোলাম সোহরাব দোদুল। বাংলাভিশনে ঈদের ৭ম দিন দুপুর ২টা ১০ মিনিটে এই টেলিফিল্মটি প্রচারিত হবে।

 

 

aro porun:

দেশের বাজারে মি ১১ লাইট স্মার্টফোন উন্মোচন করেছে শাওমি বাংলাদেশ। সম্প্রতি অনলাইনে স্মার্টফোনটি উন্মোচন করা হয়। চলতি বছরের সবচেয়ে পাতলা ও হালকা ওজনের এই স্মার্টফোনের পুরুত্ব ৬.৮মিমি এবং ওজন মাত্র ১৫৭ গ্রাম। ফোনটির সামনে পাঞ্চ-হোল ডিজাইনের ক্যামেরা ও বেজেলহীন ডিসপ্লে রয়েছে। যারা বড় স্ক্রিন চান তাদের জন্যই ডিভাইসটি ডিজাইন করা হয়েছে। ফোনটির পাশে দেওয়া হয়েছে কার্ভড ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

 

স্মার্টফোনটির উন্মোচন উপলক্ষে শাওমি বাংলাদেশের কান্ট্রি জেনারেল ম্যানেজার জিয়াউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘মি সিরিজের মাধ্যমে আমাদের লক্ষ্য অর্থবহ উদ্ভাবন ও সেরা প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রাহকদের সকল চাহিদা পরিপূর্ণ করা। মি ১১ সিরিজটিও এর ব্যতিক্রম নয়।’

 

মি ১১ লাইট ফোনটিতে দেয়া হয়েছে স্পোর্টস ৬.৫৫ ইঞ্চির ১০-বিট অ্যামোলেড ডট-ডিসপ্লে। ডিভাইসটি আসছে ১.০৭ বিলিয়ন অন স্ক্রিন কালারে, যা এর পূর্বসূরিদের থেকে ৬৪ গুণ বেশি (৮-বিট ডিসপ্লে)। ডিসপ্লেতে ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট ও ডিসপ্লের স্থায়িত্ব বাড়াতে সামনে ও পেছনে দেওয়া হয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৫ এর সুরক্ষা।
সরু ও হালকার মধ্যে মি ১১ লাইট ফোনটিতে দেয়া হয়েছে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ। এর প্রাইমারি ক্যামেরা ৬৪ মেগাপিক্সেলের, আছে ৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স এবং তার সঙ্গে একটি ৫ মেগাপিক্সেলের টেলিম্যাক্রো ক্যামেরা। মি ১১ লাইট এর সামনে আছে ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.