Breaking News

কোরআন তেলাওয়াত শুনে ফরাসি তরুণীর ইসলাম গ্রহণ

ফ্রান্সে ধর্ম একটি ব্যক্তিগত বিষয়।মাধ্যমিক স্কুলে একটি মুসলিম মেয়ে আমার সহপাঠী ছিল। তার সঙ্গে কেউ বন্ধুত্ব করতে রাজি ছিল না। আমি তাঁর দিকে বন্ধুত্বের হাত বাড়িয়ে দিলাম। আমার মা-বাবা বলেছিলেন সবার প্রতি সহানুভূতিশীল হতে—সে যে বর্ণেরই হোক এবং যেখান থেকেই আসুক। তাই আমি তাঁর সঙ্গে বন্ধুত্বের সিদ্ধান্ত নিলাম। মনে পড়ে, মারিয়াম ছিল ব্যক্তিত্ববান এবং অঙ্ক করার সময় সমস্যায় পড়লে সে আমাকে সাহায্য করত। সপ্তাহে দুইবার আমি ও মারিয়াম আমাদের বাড়িতে লেখাপড়া করতাম। একদিন কোনো কারণে আমাদের বাড়িতে পড়া সম্ভব ছিল না। সে আমাকে তাদের বাড়িতে আমন্ত্রণ জানাল। আমি আগে কখনো তাদের বাড়ি যাইনি। তার মায়ের সঙ্গে দেখা হবে—এই ভাবনায় আমার ভেতর উত্তেজনা অনুভব করছিলাম।

 

তখন আমার বয়স ১৫ বছর। তারা ছোট একটি অ্যাপার্টমেন্টে থাকত এবং মারিয়ামের নিজস্ব কোনো বেডরুম ছিল না। আমরা লিভিংরুমেই পড়তে বসলাম। তার মা ছিলেন খুবই বন্ধুসুলভ। তিনি আমাদের জন্য খাবার তৈরি করলেন। আমরা যখন পড়ছিলাম, মারিয়ামের মা তখন রুমের অন্য পাশে বসে একটি বই পড়ছিলেন। যদিও তিনি নিচু স্বরে পড়ার চেষ্টা করছিলেন, তবু আমি তাঁর চমৎকার সুর শুনতে পাচ্ছিলাম।মারিয়ামকে জিজ্ঞেস করলাম, তার মা কী করছেন। সে উত্তর দিল, মা মুসলমানের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরআন পাঠ করছেন। আমি বিস্মিত হলাম। কেননা আমি কখনো এভাবে কাউকে বাইবেল পাঠ করতে দেখিনি মারিয়ামের মাকে বললাম, আপনি আমাদের কাছে বসুন এবং কোরআন পাঠ করে শোনান। যদিও আমি একটি শব্দও বুঝিনি, তবু তাঁর কোরআন পাঠে আনন্দ পেলাম এবং তা আমার হৃদয় ছুঁয়ে গেল।

 

দিন যতই যাচ্ছে করো’না ততই বেড়ে চলছে। তবে দুঃখের বিষয় হলেও সত্য যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না একদল মানুষ। এভাবে চলতে থাকলে করো’না অনেক ভ’য়াবহ রুপ ধারণ করবে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা। এমতাবস্তায় দেশে চলছে লকডাউন। নতুন খবর হচ্ছে, কঠোর লকডাউনে সরকারি অ্যাম্বুলেন্স যাত্রী পরিবহনের দায়ে চট্রগ্রামের আনোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একটি অ্যাম্বুলেন্স আ’ট’ক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

 

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) দুপুর কর্ণফুলী উপজে’লার মইজ্জারটেক চেকপোস্ট এলাকা থেকে অ্যাম্বুলেন্সটি আ’ট’ক করা হয়। পরে উপজে’লার সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুকান্ত সাহা ভ্রাম্যমাণ আ’দালত পরিচালনা করে ১ হাজার টাকা জ’রিমানা করেন। জানা গেছে, আনোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অ্যাম্বুলেন্সটি সকালে মেডিক্যাল স্টাফ নিয়ে চট্টগ্রাম শহরে আসে। ফিরে যাওয়ার সময় চালক কয়েকজন যাত্রী ওঠায়। পরে মইজ্জারটেক এলাকায় বসানো চেকপোস্টে তল্লা’শির মুখে পড়লে যাত্রীদের নামিয়ে দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সটি আ’ট’ক করে পু’লিশ।

About admin

Check Also

আজানের ধ্বনিতে মুগ্ধ হয়ে হিন্দুধর্ম ত্যাগ করে মুসলমান হলেন যুবক

ইসলাম শিক্ষা দেয় যে আল্লাহ দয়ালু, করুনাময়, এক ও অদ্বিতীয়। ইসলাম মানব জাতিকে সঠিক পথ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.