Breaking News

বাসা বদলেও লাভ হয়নি পরিবারের, তার আগেই মেয়ে গ’র্ভবতী

বয়স ২৫ হলেও অন্য সব স্বাভাবিক নারীর মতো নন তিনি। বু”দ্ধিপ্র’তিব”ন্ধী হওয়ায় বিভিন্ন সময় মেয়েটিকে বি’র”ক্ত করত এলাকার মনির (৪০) নামের এক যুবক। উপায় না দেখে মেয়েকে নিয়ে অন্যত্র ভা’ড়া বাসা নেয় পরিবার।তবে এতে কোনও লাভ হয়নি। নতুন বাসায় যাওয়ার এক মাস পর পরিবার জানতে পারে মেয়েটি চার মাসের অ”ন্তঃ’স”ত্ত্বা। পুলিশ মনিরকে গ্রে”প্তা’র করে আ”দাল’তে পাঠালে বুধবার তাকে কা”রাগা’রে পাঠানোর আদেশ দেন বি’জ্ঞ আ”দালত। এ ঘটনা নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে মিজমিজি এলাকায়। মনির সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মিজমিজ এলাকার মৃ”ত সিদ্দিক কন্টাক্টরের ছেলে।
গেলো বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর বাদীর আত্মী’য়র মৃ”ত্যু’র সংবাদ পেয়ে মেয়েকে একা বাসায় রেখে পরিবারের সবাই গ্রামের বাড়িতে চলে যায়। সেই সুযোগে আ”সা’মি মনির ভোরে ভি”কটি”মে’র বাড়িতে প্রবেশ করে বিভিন্ন প্র”লোভ”ন দেখিয়ে স”র্ব’না”শ করে।

 

এমনই বর্ণনা দিয়ে বিজ্ঞ আ”দাল’তে ২২ ধারায় জবা”নব”ন্দি দিয়েছে ভি”কটি’ম। সে সময় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাহমিদা খাতুন এ জ”বানব”ন্দি রেকর্ড করেন। ওই সময় গ্রে’প্তা’রকৃ’ত মনিরকে কা”রাগা’রে পা”ঠানোর আদেশ দেন বি’জ্ঞ আ”দাল’ত।

 

এ বিষেয় কোর্ট পুলিশের এএসআই মো. রোকনুজ্জামান বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার দা”য়ে’রকৃ’ত এই মা’ম’লা’য় ভি”কটি”ম আজ আদালতে ২২ ধারায় জ’বানব”ন্দি দিয়েছেন। সে সময় গ্রে”প্তা’র’কৃত আসা”মিকে কা”রাগা’রে পাঠানোর আদেশ দিয়েছে বি’জ্ঞ আদালত।মা’ম’লা এজাহার সূত্রে জানা যায় যে, বাদী পূর্বে যে বাসায় ভাড়া থাকতেন তার পাশের বাড়িতেই থাকতেন অ”ভিযু”ক্ত মনির। বা”দীর মেয়ে একজন বু’দ্ধি প্র’তিব”ন্ধি।

 

বিভিন্ন সময় মেয়েটিকে বি’র”ক্ত করতো ও বিয়ের প্র’লোভন দেখিয়ে ফু’সলা”তো পাশের বাড়ির মো. মনির (৪০) নামের এক যুবক। পরে বাদী সেখানকার ভা”ড়াটি’য়া বাড়ি ছেড়ে মেয়েকে নিয়ে অন্যত্রে ভা’ড়া চলে আছে।

 

কিন্তু বাড়ি পরিবর্তন করেও লাভ হয়নি বা’দীর। চার মাস আগেই মনিরের হা’তে লা”ল’সার শি”কার হন ওই তরুণী। গেলো ১৫ দিন যাবৎ মেয়ের অ”স্বাভাবিক চলাফেরা ও শারী’রিক পরিবর্তন হওয়ায় ডাক্তারি চিকিৎসা শেষে জানতে পারে চার মাসের অ”ন্তঃস”ত্ত্বা বাদীর মেয়ে। সে সময় ভি”কটি”মকে বাদী জিজ্ঞাসাবাদ করলে ঘটনার বিস্তারিত জানায় ভি”কটি”ম। পরে ভি”ক’টি’মের বাবা বা”দী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মা”ম’লা দা”য়ের করেন।

 

 

 

ফেনীর সোনাগাজীতে ল’কডা’উন অ’মান্য করে বিয়ে আয়োজনের খবরে সে’নাবাহিনীর সদস্যদের নিয়ে কনের বাড়িতে উপস্থিত হন উপজে’লা সহকারী কমিশনার (ভূমি) জাকির হোসেন। সে’নাবাহিনীর সদস্যদের দেখেই বরকে রেখে পা’লিয়ে যান অ’তিথিসহ বাড়ির লোকজন। রোববার (৪ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে উপজে’লার আমিরাবাদ ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান জহিরুল আলম বলেন, ল’কডা’উন অ’মান্য করে ইউনিয়নের সফরপুর গ্রামের ছলিম উদ্দিন মুন্সি বাড়ির হেদায়েত উল্লাহর মে’য়ের বিয়ের আয়োজন করা হয়।

 

খবর পেয়ে টহলরত সে’না সদস্যদের নিয়ে এসিল্যান্ড সেখানে অ’ভি’যান চালান। বিয়ে বাড়িতে সে’না সদস্যদের দেখে বরযাত্রী ও আগত অ’তিথিরা দিক-বিদিক ছুটোছুটি করে পালিয়ে যান। পরে স্বাস্থ্যবিধি অমান্যের দায়ে ১০ হাজার টাকা জ’রি’মানা করে মে’য়ের বাবার কাছ থেকে মুচলে’কা নিয়ে স্বল্প পরিসরে বিয়ের কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ দেন। আহমেদ করিম নামের এক অ’তিথি বলেন, খাবার খেতে বসে শুনতে পাই সে’নাবাহিনী নিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট চলে এসেছে। ভ’য়ে হাত পরি’ষ্কার না করেই দৌড়ে পাশের বাড়িতে আশ্রয় নিই।

About admin

Check Also

চালক প্রাণ দিয়েও ডাকাতদের কবল থেকে রক্ষা করতে পারলেন না বাস

গাইবান্ধা জেলার সীমানা চম্পাগঞ্জ এলাকায় ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে হানিফ পরিবহনের একটি নৈশকোচে ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। এ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.