Breaking News

বিয়ের অনুষ্ঠান পণ্ড, ৫০০ অতিথির খাবার গেল এতিমখানায়

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার বুল্লা ইউনিয়নের বুল্লা গ্রামে সরকারি বিধি-নিষেধ অমান্য করে জালু মিয়া নামে এক ব্যাক্তি তার ছেলের বিয়ের আয়োজন করছিলেন। ৫০০ অতিথিকে খাওয়ানোর জন্য করা হয় রান্না। বাড়িতে গেইট ও আলোকসজ্জারও কমতি ছিল না।

 

মঙ্গলবার দুপুরে যখন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতির শেষ পর্যায়ে তখন বাড়ির সামনে আসে বেশ কয়েকটি গিড়ী। বাড়ির লোকজন মনে করেন কনে পক্ষের অতিথিরা মনে হয় চলে এসেছেন। কিন্তু না। কোন অতিথি নয়। গাড়ী থেকে নেমে আসেন খাকি ড্রেস পরিহিত সেনাবাহিনী, পুলিশ আর আনসার সদস্যরা। সবার সামনে মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মঈনুল ইসলাম মঈন।

 

তিনি এসে নির্দেশ দেন আয়োজন বন্ধ করার। আইন না মেনে এই আয়োজন করায় বরের বাবা জালু মিয়াকে করেন ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড। আর অতিথি আপ্যায়নের জন্য রান্না করা ৫০০ জনের খাবার গাড়িতে করে নিয়ে যান এতিমখানায় বিতরণের জন্য।

 

মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মঈনুল ইসলাম মঈন জানান, আইন না মেনে এই ওয়ালিমা অনুষ্ঠান আয়োজন করায় তা পণ্ড করা হয়েছে। বরের পিতার কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। খাবারগুলো পৌঁছে দেয়া হয়েছে বিভিন্ন এতিমখানায়। এটি সবার জন্য উদাহরণ সৃষ্টি করবে।

 

 

aroorun:

ইসলাম শিক্ষা দেয় যে আল্লাহ দয়ালু, করুনাময়, এক ও অদ্বিতীয়। ইসলাম মানব জাতিকে সঠিক পথ দেখায়। ইসলামী বিশ্বা’স অনুসারে, আদম ‘হতে শুরু করে আল্লাহ্ প্রেরিত সকল নবী ইসলামের বাণীই প্রচার করে গেছেন। যুগে যুগে বহু মানুষ ভিন্ন ধর্ম থেকে ইসলাম গ্রহন করেছেন।

 

নতুন খবর হচ্ছে, স্বপন সরকার নামের এক যুবক হিন্দু ধর্ম পরি’ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পর তার নাম রাখা হয়েছে মো. আবদুল্লাহ্ আল সিয়াম (২৪)।

 

শুক্রবার (১৮ জুন) জুমা’র নামাজের পূর্বে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর কেন্দ্রীয় শাহী জামে মসজিদে তাকে কালেমা পাঠ করান মসজিদের খতিব হযরত মাওলানা মুফতি ড. সালাহ্ উদ্দীন আশরাফী।

 

মো. আবদুল্লাহ্ বলেন, ছোট বেলা থেকেই ইসলামের ধর্মীয় রীতি-নীতি ভালো লাগতো। নামাজ, যাকাত, হজ্ব ই’ত্যাদি সবই ভালো লাগে, তখন থেকেই ইসলাম ধর্মের প্রতি এক ব্যতিক্রম শ্র’দ্ধা আসে নিজের মধ্যে। আমা’র সব বন্ধুরাই মুসলিম, চলাফেরাও ওদের সাথেই। আজানের ধ্বনি আমাকে মুগ্ধ করে। বাংলাদেশসহ পৃথিবীতে অনেক সৌন্দর্য্যময় মসজিদ রয়েছে যেগু’লোর ভিতরে প্রবেশ করলে মনে প্রশান্তি আসে।

 

আমি দূরে থাকলেও আমা’র মা-বাবাকে ইসলামের পথে আনার চে’ষ্টা করবো এবং দূর থেকে হলেও তাদের খেদমত করবো ইনশাআল্লাহ্। তিনি যেন সঠিকভাবে শান্তির ধর্ম ইসলাম পালন করতে পারেন, আল্লাহর হুকুম ও নবী রাসুলের (সা:) দেখানো পথে চলতে পারেন এজন্য সকলের নিকট দোয়া কামনা করেন।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.