Breaking News

যে কারণে বিশেষ দিনে নারীদের দেওয়া হলো না করোনা ভ্যাকসিন

করোনা টিকা পরবর্তী জটিলতার কারণে কয়েকজন নারীকে মাসিক চলাকালীন টিকা দিতে অস্বীকৃতি জানানো হয়েছে। সেইসঙ্গে তাদের পাঁচদিন পর টিকা গ্রহণের কথা বলা হয়েছে। ভারতের উত্তর কর্ণাটকের একটি টিকা কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটেছে।

 

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া একটি স্বাক্ষাৎকারে এই খবর প্রকাশ করেছেন সামাজিক কর্মী বিদ্যা পাতিল। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রায়চুরে কিছু স্বাস্থ্যকর্মী টিকা নিতে আসা নারীদের ঋতুচক্র শেষ হওয়ার ৫ দিনের পরে টিকা কেন্দ্রগুলোতে ফিরে আসতে বলেন। এমনকি ওই নারীদের বলা হয়, এই সময়ে টিকা নিলে মহিলাদের ‘ভারী রক্তক্ষরণ’ হবে এবং শারীরিক অবসন্নতাও বেড়ে যেতে পারে।স্থানীয় রায়চুর, বেলাগাভি ও বিদার জেলা থেকে একই রকম ঘটনার খবর পাওয়া গিয়েছে ।

 

এদিকে রায়চুরের জেলা প্রশাসক আর ভেঙ্কটেশ কুমার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। সেইসঙ্গে তিনি বলেছেন যে এলাকার নারীরা যথেচ্ছভাবেই টিকা গ্রহণ করছেন রায়চুরে।

এর আগেও ঋতুস্রাব চলাকালীন টিকা নেওয়া যাবে কি না এই নিয়ে সংশয় তৈরি হয়। বেশ কিছু ভুয়ো তথ্য সামাজিকযোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এমনকি তথাকথিত বিশেষষজ্ঞরাও বিষয়টিতে সাড়া দিয়ে বলে, ঋতুচক্র অনুযায়ী, ঋতুস্রাবের পাঁচ দিন আগে এবং পাঁচ দিন পরে টিকা নেওয়া উচিত নয়। এরপরেই এই নিয়ে বিবৃতি জারি করে কেন্দ্র। ওই তথ্যকে ‘ভুয়ো’ আখ্যা দিয়ে প্রেস ইনফরমেশন ব্যুরো (পিআইবি)-র তরফে লিখিত বিবৃতি জারি করা হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ঋতুচক্রের পাঁচ দিন আগে ও পরে মহিলাদের টিকা নেওয়া উচিত নয় বলে যে তথ্য ঘুরে বেড়াচ্ছে, তা একেবারেই ভুয়ো। গুজবে কান দেবেন না। ১ মে-র পর ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সকলের টিকা নেওয়া উচিত। ২৮ এপ্রিল থেকে নামের নথিভুক্তিকরণ শুরু হচ্ছে।’

 

ঋতুস্রাবের সঙ্গে করোনা টিকার কোনও যোগ নেই বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক এবং সমাজকর্মীরা।আমেরিকার ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’ পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ইয়েল স্কুল অব মেডিসিন-এ কর্মরত অ্যালিস লু-কালিগান এবং র‌্যান্ডি এপস্টিন লেখেন, ‘এখনও পর্যন্ত এমন কোনও তথ্য হাতে আসেনি, যা প্রমাণ করে করোনা প্রতিষেধকের সঙ্গে ঝতুস্রাবের কোনও সংযোগ রয়েছে। আর থাকলেও এক বার অনিয়মিত ঋতুস্রাবে বিপদের কিছু নেই’।

 

 

 

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের জারি করা সাত দিনের কঠোর লকডাউনে বিধিনিষেধ মেনে চলা নিশ্চিত করতে সারা দেশে পাড়া-মহল্লায় বিশেষ অভিযান চালাবে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

 

শনিবার (০৩ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডির রাসেল স্কয়ার মোড়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক খন্দকার আল মঈন। তিনি বলেন, কঠোর লকডাউনে মূল সড়কগুলোতে মানুষের অযথা চলাচল কম থাকলেও পাড়া-মহল্লায় দিনভর জটলা লেগে থাকে। এমন বাস্তবতায় দেশজুড়ে অভিযান চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে র‌্যাব।

 

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে দেশে পয়লা জুলাই থেকে শুরু হয়েছে কঠোর লকডাউন, যা পরিচিতি পেয়েছে শাটডাউন হিসেবে। এ শাটডাউন চলবে ৭ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত।

About admin

Check Also

এক দিনে ১ কোটি লোককে টিকা দিল ভারত

ভারত শুক্রবার একদিনে প্রথমবারের মতো ১০ মিলিয়নের বেশি ভ্যাকসিন দিয়েছে। আজ শনিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, …

Leave a Reply

Your email address will not be published.